মঙ্গলবার, ২৫ Jun ২০১৯, ০১:৫১ অপরাহ্ণ

‘প্রকাশ্যস্থানে আরএসএসের শাখা বন্ধ না হলেও নামাজে নিষেধাজ্ঞা কেন?’

‘প্রকাশ্যস্থানে আরএসএসের শাখা বন্ধ না হলেও নামাজে নিষেধাজ্ঞা কেন?’

ভারতের সুপ্রিম কোর্টের সাবেক বিচারপতি মার্কণ্ডেয় কাটজু পার্কে নামাজ আদায়ে নিষেধাজ্ঞায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। বিচারপতি কাটজু প্রশ্ন উত্থাপন করে বলেছেন, প্রকাশ্যস্থানে আরএসএসের শাখা বন্ধ না হলেও নামাজে নিষেধাজ্ঞা কেন?  আজ (বুধবার) কাটজুর ওই মন্তব্য গণমাধ্যমে প্রকাশ্যে এসেছে। সম্প্রতি উত্তর প্রদেশ পুলিশের পক্ষ থেকে নয়ডাতে পার্কে নামাজ পড়ায় নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।

বিচারপতি কাটজু বলেন, আমাদের সংবিধানে ১৯(১) ধারায় সমস্ত জনসাধারণের নিরস্ত্র অবস্থায় শান্তিপূর্ণভাবে জড়ো হওয়ার অধিকার আছে। সেজন্য ওই নিষেধাজ্ঞা সংবিধানের সংশ্লিষ্ট ধারার গুরুতর লঙ্ঘন।

তিনি বলেন, ‘আমি দেখেছি, পার্কে এবং এখানে ওখানে আরএসএসের শাখা চলতে। এতে কোনো নিষেধাজ্ঞা নেই, কোনো অনুমতিও নিতে হয় না। কিন্তু সপ্তাহে একদিন শুক্রবার ৪৫ মিনিট থেকে বড়জোর এক ঘণ্টা নামাজে আপত্তি কেন? এটি সম্পূর্ণ ভুল আদেশ এবং আমি এর তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি।’

অন্য একটি ইস্যুতে বিচারপতি কাটজু গরুকে ‘মা’ মানতে অস্বীকার করে বলেছেন, বিশ্বজুড়ে গরুর গোশত খাওয়া হয় এবং কিছুদিন আগে কেরালায় তিনি গরুর গোশত খেয়েছেন। তিনি গরুকে কুকুর, ঘোড়া ইত্যাদির মতো পশুর সঙ্গে তুলনা করে বোকারাই গো-মাতা বলে থাকে বলে মন্তব্য  করেছেন। তাঁর মতে কোনো প্রাণী কখনো ‘মা’ হতে পারে না।

সম্প্রতি উত্তর প্রদেশ পুলিশের পক্ষ থেকে নয়ডার সেক্টর-৫৮ এলাকায় ১২টি বহুজাতিক সংস্থাকে পার্কে নামাজ আদায় বন্ধ করতে নোটিস দেয়া হয়েছে। ওইসব সংস্থার মুসলিম কর্মীরা কয়েক বছর ধরে শুক্রবার পার্কটিতে জুমা নামাজ আদায় করছেন। পার্কে নামাজ আদায় করতে দেখা গেলে কোম্পানিগুলোকে নির্দেশভঙ্গের দায় নিতে হবে বলেও পুলিশি নির্দেশিকায় বলা হয়েছে। এরপরেই এ নিয়ে বিতর্ক শুরু হয়েছে।

-পার্সটুডে





© Agooan News 2017
Design & Developed BY ThemesBazar.Com