বুধবার, ১৭ Jul ২০১৯, ১১:৩৫ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ :
তামীম চৌধুরীর একগুচ্ছ কবিতা

তামীম চৌধুরীর একগুচ্ছ কবিতা

তামীম চৌধুরীর একগুচ্ছ কবিতা

আমরা দু’জন এক জোড়া পাখি

মনে হচ্ছে- আমি ছোট দুটি ডানায়
মানুষের দেহের চেয়েও বেশি শক্তি নিয়ে উড়ছি।
ব্যস্ততার আদি-অন্ত নেই। এ গ্রাম ও গ্রাম থেকে
জোগাড় করছি উপযুক্ত খড়কুটো।
সূর্যের সাথে আমার শত্রুতা নেই
সে তবু এতো দ্রুত ডুবে যায় কেনো?
ও  আরেকটু দেরিতে অস্ত গেলে
নীড় বুননের আরোকিছু উপাদান
সংগ্রহ করা যেতো। আনন্দ আর অস্থিরতায়
গাছের কোনো ডালপালাতে
আমি এক মুহূর্তের জন্যে স্থির দাঁড়াতে পারছি না
তুমি শিস বাজিয়ে জানিয়ে দিয়েছো- তোমার ভেতরে ডিম এসেছে।

জীবন সুন্দর

আমি নদীর সাথে
নিজেকে মিশিয়ে দিলে
তার জলের উপরে
শ্রীবর্ধক গাঙচিলগুলো তুমি।
তুমি বললে ‘দাঁড়াও’
আমি উঠে দাঁড়ালাম।
তুমি বললে ‘গাও’
কণ্ঠ ছেড়ে গাইলাম।
দলবাঁধা জোনাকি হয়ে
আমার ভেতর
যদি তুমি ছড়িয়ে না পড়তে
জীবনের ঝোঁপঝাড়
এতটা সুন্দর কী করে হতো?
পায়ের সাথে পা মিলিয়ে
ছায়ার মতো আমার সাথে হেঁটেছো বলেই
আমি চোখের পাতা খুলে এই প্রথম দেখলাম
এক পা টেনে টেনে হাঁটা
জন্মখোঁড়া শালিক পাখিটাও মগডালে
কাৎ হয়ে দাঁড়িয়ে গাইছে- ‘জীবন সুন্দর’

মানুষ হত্যার সহজ সুন্দর নির্বিঘ্ন কৌশল

মানুষ হত্যা করা এক গ্লাস শরবত পানের চেয়ে
সহজ।
মানুষ হত্যার সবচেয়ে সুন্দর ও নির্বিঘ্ন কৌশলটি
আমি
তোমাকে শিখিয়ে দিতে পারি। আর এইভাবে
তুমি যদি কাউকে মেরে ফেলো;- তোমাকে কোনো
আইনগত ঝামেলাও পোহাতে হবে না।
না থানা
না কোর্ট
না পুলিশ
নমস্য প্রধান বিচারপতি পর্যন্ত চুপ
যেন তুমি কোনো মানুষকে ওপারে পাঠাওনি
যেন তুমি নিজের বসতবাড়ির
অপ্রয়োজনীয় একটা গাছের
গোড়া কেটেছো মাত্র;-
খুবই স্বাভাবিক এবং ন্যায়সঙ্গতও বটে!
এবার নিশ্চয়ই
মানুষ হত্যার এই কৌশল
ও নিপুণ পদ্ধতি সম্পর্কে জানার জন্যে
তুমি অতি আগ্রহী হয়ে ওঠেছো?
তোমার আগ্রহটাও স্বাভাবিক।
কারন- তুমি যৌবনে পা রেখেছো
তোমার বুকের দু পাশে সৌন্দর্যের দুটি চূড়া
উঁকি দিয়েছে;- তুমি এখন তরঙ্গায়িত জলাধার।
কাউকে মেরে ফেলতে চাইলে;-
তুমি তার বুকে “স্বপ্ন” দিয়ে
তাকে “ভালোবাসি” বলে চলে যেয়ো।
… এ-ভাবে আমি ও আমার এক ঘনিষ্ঠ বন্ধু
শেফালি ও অরুন্তীর হাতে খুন হয়েছিলাম।

কর্মজীবন

একটা চাকরি নিয়ে
তাতে মজা পেয়ে গেছি।
অতএব ছুটিছাটা নিচ্ছি না কিছু।
কেউ আমাকে পদচ্যুত করতে চাইলে
তুলকালাম কাণ্ড বেঁধিয়ে দেবো।
এমনকী যে আমাকে এখানে
নিয়োগ দিয়েছেন সে-ও যদি আমাকে
ছাঁটাই করতে চায়, তাহলে
তার নাকেও বড়সড় একটা ঘুষি।
চাকরিটা অবশ্য অবৈতনিক।
টাকাকড়ি পাই না যদিও
তবে নিয়োগকর্তার সহিত
অন্য এক ধরণের লেনাদেনা আছে
আমি তার দুঃখে সমব্যথী হই
সে-ও আমার ভারাক্রান্ত সময় পাশে দাঁড়ায়
দুজন এক মুখে হাসি
তাই আনন্দের পরিমাণটা সমান।
আমার নিয়োগকর্তার সাথে আমার সম্পর্কটা
নদী ও জলের সাথে তুলনা করলে তা-ও করতে
পারেন- আমি তাকে ‘জল’ দিই, বিনিময়ে
সে আমাকে প্রতিমুহূর্তে ‘ঢেউ’ ফেরত দেয়।
এমনটা কখনো দেখেছেন
কর্মী মালিককে ধমকাতে?
হুম, আমাদের মাঝে
মালিক কর্মচারীর আচরণ নেই;-
চোখ-টেপাটিপি আছে
গোপনে আরেকটা জানিসও আছে
গোপনে সে আমাকে যৌবন দিয়ে
পুরুষ বানিয়ে তুলছে
আজ্ঞে হ্যাঁ মশাই, এটুকুর বিনিময়ে
এতো বড় একটা প্রতিষ্ঠানের সকল নথিপত্র
আমি একাই ঘাঁটাঘাঁটি করে ঘাম ঝরাচ্ছি
আমি একাই এ টেবিল থেকে ও টেবিলে দৌড়াচ্ছি
উক্ত প্রতিষ্ঠানের আমিই প্রথম শ্রেণি
আমিই তৃতীয় শ্রেণি, আমিই দ্বিতীয় শ্রেণি
যোগদানের আগেই বলে রেখেছি
দ্বিতীয় কোনো ব্যক্তি যেন
তার প্রতিষ্ঠানের বারান্দায় পর্যন্ত
পা রাখতে না পারে
অর্থাৎ,
আমিই কেরানি
আমিই পিয়ন
আমিই ব্যবস্থাপক
আমিই বাধ্যগত দারোয়ান

তোমার জন্যে ভয়, ভীতি ও দুশ্চিন্তা

যখন যেখানে যাও
আড়ালে থাকো।
যাকিছু আছে
ঢেকে রাখো।
এখানে ফুলের ভেতর
মধুর সঞ্চয় অনিরাপদ।
পথের ওপর ফেলা
থুথুও কুঁড়িয়ে নিয়ে যায় লোকে।
তোমার তো হীরের শরীর
নাক মুখ পিঠ চোখ থেকে দ্যুতি ছড়াচ্ছে;
কে কখন ছিনতাই করে নিয়ে যায়
ভয়ে ভয়ে থাকি।
ঘরের খেয়ে ক্ষুধা মেটে না
আশেপাশে অমন প্রাণির সংখ্যা বেশি;
খুব দুশ্চিন্তা হয়- তোমার মাখনের তৈরি
গলা নিয়ে।
একটু না, অনেকটাও না,
পুরোটা সাবধানে থেকো!
মনে রেখো;- তুমি যখন যেখানে দাঁড়াও
তার কিলো কিলো দূরেও সুগন্ধ ছড়িয়ে যায়।
আমাকে রেখে
একাকী কোথাও যেয়ো না
একাকী কোথাও গেলে
আমি ভাঙনপ্রবণ নদীর তীরে
ঘরবাঁধা মানুষের মতো সন্ত্রস্ত থাকি।
ভয়ে মাথার বাঁ পাশটায় যন্ত্রণা হয়
যখন মনে পড়ে;-
তোমার ঠোঁট দুটিতেও আছে দুধের ক্ষীর
আর চারদিকে মানুষের বেশে ঘুরছে মাছির পাল।

শর্ত

তোমার জন্যে কতো লোকের
হাতেপায়ে ধরেছি- একদিন বলবো।
সূর্যটাকেও ম্যানেজ করে ফেলবো নিশ্চিত।
তোমার শর্তে এক নিশ্বাসে রাজি।
মুঠো-না-করেই সারাটা দুপুর
                                 দাঁড়িয়ে থাকবো
রৌদ্রে শুকাবে না
সন্ধ্যায় ফিরে এসে
হাতের তালুতে অক্ষত পাবে শিশিরের ফোঁটা।





© Agooan News 2017
Design & Developed BY ThemesBazar.Com